ঢাকা,  সোমবার
২২ জুলাই ২০২৪

Advertisement
Advertisement

মোবাইলের স্ক্রিনে কোরআনের আয়াত ব্যবহার, ইসলাম কি বলে?

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৬:০২, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩

মোবাইলের স্ক্রিনে কোরআনের আয়াত ব্যবহার, ইসলাম কি বলে?

একসময় শুধু কথা বলার যন্ত্র হিসেবে পরিচিত মোবাইল এখন মানুষের হাতের মুঠোয় বিশ্ব এনে দিয়েছে। যোগাযোগ থেকে শুরু করে কেনাকাটা, লেনদেন, অফিশিয়াল কাজ এমনকি ব্যবসা-বাণিজ্যের কাজেও মোবাইলের ব্যবহার দিন দিন বাড়ছে। হাতের মোবাইল ফোনটিও এখন অনেকটা ব্যক্তিত্বের প্রতিনিধিত্বকারী হিসেবেও কাজ করছে। তাই অনেকেই তার শখের মোবাইল ফোনটি মনের মাধুরী দিয়ে সাজাতে পছন্দ করেন।

যার মধ্যে মোবাইলের ওয়ালপেপার বা স্ক্রিনসেভারও গুরুত্বপূর্ণ।

অনেকের মোবাইলের ওয়ালপেপার বা স্ক্রিনসেভার দেখেও তার শখ কিংবা লক্ষ্য আন্দাজ করা যায়। ওয়ালপেপার বা স্ক্রিনসেভারে এমন কিছুর ছবি দিতে পছন্দ করেন, যে জিনিসের সঙ্গে তার আবেগ জড়িত। যেমন অনেকে তার সন্তান কিংবা মা-বাবা অথবা প্রিয়তমা স্ত্রী/স্বামী অথবা পছন্দের তারকা প্রভৃতির ছবি দিয়ে রাখেন।

অনেকে আবার তাঁর স্বপ্নের বাড়ি বা বাহন ইত্যাদির ছবি দিয়ে রাখেন। অনেকে আবার তাঁর প্রিয় প্রতিষ্ঠানের লোগোও ব্যবহার করেন।

যাঁরা ইসলামমনস্ক, তাঁরা আবার বিভিন্ন ইসলামিক ওয়ালপেপার বা স্ক্রিনপেপার মোবাইলে ব্যবহার করেন। যেখানে মক্কা-মদিনাসহ বিভিন্ন ইসলামী স্থাপনার ছবি থাকে অথবা বিভিন্ন বাণী ইত্যাদিও টাইফোগ্রাফি আকারে থাকে।

অনেকে আবার ‘আল্লাহু’, ‘মুহাম্মদ’ কিংবা কোরআনের আয়াতসংবলিত ওয়ালপেপার/স্ক্রিনসেভার ইত্যাদিও ব্যবহার করেন। প্রশ্ন হলো, মোবাইল সব সময় মানুষের সঙ্গে থাকে, এমনকি যখন মানুষ টয়লেটে যায়, তখনো তাঁদের পকেটে মোবাইল থাকে। অনেক সময় খাটে কিংবা টেবিলে পড়ে থাকে, অসতর্কতাবশত পায়ের সঙ্গেও মোবাইল লেগে যায়। এ অবস্থায় কি মোবাইল স্ক্রিনে আল্লাহ বা রাসুল (সা.)-এর নামসংবলিত কিংবা কোরআনের আয়াত বা হাদিসসংবলিত ওয়ালপেপার বা স্ক্রিনসেভার ব্যবহার করা ঠিক হবে?

এর উত্তর হলো—মোবাইল স্ক্রিনে আল্লাহর নামের ক্যালিগ্রাফি বা লিখিত আয়াত কিংবা অন্য কোনো জিকির ইত্যাদি সেভ করে রাখা ঠিক নয়। কেননা এতে আল্লাহর নামের সম্মান ক্ষুণ্ন হওয়ার ভয় থাকে।

মোবাইল সাধারণত সম্মানের সঙ্গে ব্যবহার করা হয় না। অনেক সময় বসার স্থানে, নিচেও থাকে, চার্জের প্রয়োজনেও নিচে রাখতে হয় ইত্যাদি। তাই এ ধরনের কোনো কিছু স্ক্রিনসেভারে রাখা ঠিক হবে না। (ফাতাওয়ায়ে হিন্দিয়া : ১/৫০)
তাই আমাদের উচিত, মোবাইল স্ক্রিনে এমন কোনো ওয়ালপেপার বা স্ক্রিনসেভার ব্যবহার না করা, যাতে কোরআন-হাদিস ইত্যাদির অবমাননা হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এ ছাড়া কোনো প্রাণীর ছবি ব্যবহার করা অনুচিত।

Advertisement
Advertisement

Notice: Undefined variable: sAddThis in /mnt/volume_sgp1_05/p1kq0rsou/public_html/details.php on line 531