ঢাকা,  সোমবার
২২ জুলাই ২০২৪

Advertisement
Advertisement

আবেদ আলী কেন আলোচনায়, কর্তারা কোথায়

প্রকাশিত: ১৭:৫৫, ৯ জুলাই ২০২৪

আপডেট: ১৭:৫৫, ৯ জুলাই ২০২৪

আবেদ আলী কেন আলোচনায়, কর্তারা কোথায়

আবেদ আলী

রোববার (৮ জুলাই) বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল টোয়েন্টিফোরে গত ১২ বছরে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের পিএসসির অধীনে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে। সেখানে পিএসসির সাবেক গাড়ি চালক ও কর্মকর্তারা প্রশ্নপত্র ফাঁসে জড়িত বলে অভিযোগ করা হয়। আবেদ আলী ঢাকা ও মাদারিপুরে বিপুল সম্পদের মালিক খবর প্রকাশ হয়। আর এর পর থেকে তিনি টক অব দ্যা কান্ট্রি।

কিন্তু এতো বড় দুর্নীতির সঙ্গে একজন গাড়ি চালকের সম্পৃক্ততার পেছনে কি তিনি যাদের অধিনস্ত ছিলেন তারা জড়িত নয়? আবেদ আলী শুধুই একজন দুর্নীতি বাহক। আর সেজন্য যে অর্থের ভাগ পেয়েছেন তা বড় কর্তাদের তুলনায় খুবই নগন্য। তবে শিক্ষা ও কূটরাজনীতিতে অজ্ঞতার কারণে আবেদ  আলী সম্পদ প্রদর্শন করেছেন। স্বপ্ন দেখেছেন অনেক উপর তলার। যা তার স্বপ্ন ভঙ্গ করেছে।

জানা গেছে, সৈয়দ আবেদ আলী অন্তত ৫০ কোটি টাকার সম্পদের মালিক। ঢাকায় তাঁর একটি ছয়তলা বাড়ি, তিনটি ফ্ল্যাট ও একটি গাড়ি রয়েছে। গ্রামের বাড়িতে রয়েছে ডুপ্লেক্স ভবন। পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আবেদ আলী এসব তথ্য জানিয়েছেন। সিআইডির কর্মকর্তাদের ধারণা, আবেদ আলীর আরও সম্পদ রয়েছে।

বাংলাদেশ রেলওয়ের উপসহকারী প্রকৌশলী পদে নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসে জড়িত অভিযোগে সোমবার রাজধানীর শেওড়াপাড়ার ওয়াসা রোডের নিজ ফ্ল্যাট থেকে সৈয়দ আবেদ আলী ও তাঁর বিশ্ববিদ্যালয়পড়ুয়া ছেলে সৈয়দ সোহানুর রহমান ওরফে সিয়ামকে গ্রেপ্তার করা হয়। একই সঙ্গে গ্রেপ্তার করা হয় পিএসসির দুজন উপপরিচালক, একজন সহকারী পরিচালকসহ আরও ১৫ জনকে।

মঙ্গলবার তাদের ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতের তোলা হলে সৈয়দ আবেদ আলীসহ সাতজন ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে হয়। এরপর তাদের বক্তব্য রেকর্ড করার জন্য আদালতে নেওয়া হয়। এ ছাড়া সৈয়দ আবেদ আলীর ছেলেসহ ১০ জনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

 

Advertisement
Advertisement

Notice: Undefined variable: sAddThis in /mnt/volume_sgp1_05/p1kq0rsou/public_html/details.php on line 531